ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারী ২০, ২০২০

শিরোনামঃ

size-218*80

size-218*80

size-218*80

কুবির বাসে হামলার ঘটনায় মামলা

কুবির বাসে হামলার ঘটনায় মামলা

স্টাফ রিপোর্টার : কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) শিক্ষার্থীদের বাসে বহিরাগতদের হামলার ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শুক্রবার (১২ অক্টোবর) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা কর্মকর্তা সাদেক হোসেন মজুমদার বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা বেশ কয়েকজনকে আসামি করে কুমিল্লা কোতোয়ালী মডেল থানায় মামলাটি করেন। মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুমিল্লা কোতয়ালী থানার ওসি আবদুস ছালাম মিয়া।

তিনি বলেন, কুবির প্রশাসনের পক্ষ থেকে অজ্ঞাত পরিচয়ে একটি মামলা করেছে। আমাদের জায়গা থেকে আমরা ঘটনা তদন্ত করছি।

মামলার বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দীন জানান, বৃহস্পতিবারের ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে একটি মামলা করা হয়েছে, পুলিশ সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত দোষীকে আইনের আওতায় আনবে।

এদিকে হামলার পরে সন্ত্রাসীদের শনাক্ত করার পরেও অজ্ঞাতনামা মামলা কেন করা হল সে বিষয়ে চাপা ক্ষোভ করছে সাধারণ শিক্ষার্থীদের মধ্যে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন শিক্ষার্থী জানান,’কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নিয়মিতই বাহিরের সন্ত্রাসীদের হাতে মার খেয়ে যাচ্ছে আর প্রশাসন মামলা করে আর তদন্ত কমিটি করেই শিক্ষার্থীদের বুঝ দিয়ে দিচ্ছে। এবারের হামলায় যারা সম্পৃক্ত ছিল তাদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা না করলে সাধারণ শিক্ষার্থীরা আবার আন্দোলনে নেমে আসবে।”

বাসে হামলার ঘটনায় হামলাকারীর পরিচয় পাওয়ার পরও কেন অজ্ঞাতনামা মামলা হলো এমন প্রশ্নের জবাবে প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দীন বলেন,‘মামলা করার সময় ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী আমাদের কাছে নাম বলতে পারেনি। তাই আমরা কারো নাম নিয়ে মামলা করতে পারিনি।”

মামলার বিষয়ে কোতয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুস সালাম মিয়া জানান, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে একটি মামলা করা হয়েছে, সেটিকে এজাহারভুক্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (১১ অক্টোবর) কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ সংলগ্ন এলাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য ভাড়া করা বিআরটিসি বাসে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায় কিছু বহিরাগত সন্ত্রাসী। বাস চালককে রক্ষা করতে গিয়ে এসময় আহত হয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের দশম ব্যাচের শিক্ষার্থী দ্বীন মোহাম্মদ। এই ঘটনার বিচার দাবিতে বৃহস্পতিবার রাতে প্রায় দুই ঘণ্টা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। পরে পুলিশ প্রশাসনের আশ্বাসে দোষীদের বিরুদ্ধে ৬ ঘণ্টার মধ্যে ব্যবস্থা নেওয়ার শর্তে অবরোধ তুলে নেন তারা।

size-218*80

size-218*80

size-218*80

size-218*80